Monday, May 23, 2022

অভিনেতা ইনামুল হকের মৃত্যুতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের শোক

স্বাধীনতা ও একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা, বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও শিক্ষক ড. ইনামুল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক করেছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান। 

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) এক শোকবার্তায় উপাচার্য বলেন, ‘উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে এদেশের জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার মহতী প্রয়াসে ড. ইনামুল হক আন্দোলনমুখী নাটকে অংশ নেন। আজীবন তিনি নাটকের মাঝে জীবনবোধ ও বাস্তবতার মিশেল ঘটিয়েছেন। তার হাত ধরেই বাংলাদেশের নাট্যাঙ্গন আজ এক অনুপম উচ্চতায় সমুজ্জ্বল।’

উপাচার্য আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের নাট্যাঙ্গনের বিকাশে ড. ইনামুল হকের অবদান অনন্য। তার ব্যক্তিগত জীবনে বহুমাত্রিক প্রতিভার যেমন অপূর্ব সম্মিলন ঘটেছে, তেমনি তিনি পরম যতনে তার কর্মে নিজের মেধা ও প্রজ্ঞার দীপ্তিমান বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন। তার কর্মের জন্য তিনি আমাদের মাঝে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।’

শোকবার্তায় উপাচার্য মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্যঃ ইনামুল হক ১৯৪৩ সালের ২৯ মে ফেনী জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম ওবায়দুল হক ও মাতার নাম রাজিয়া খাতুন। তিনি ফেনী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও ঢাকার নটর ডেম কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি রসায়নে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন।

নামুল হক ১৯৬৫ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) রসায়ন বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন তিনি। পরে ১৯৭০ সালে সহকারী অধ্যাপক, ১৯৭৯ সালে সহযোগী অধ্যাপক এবং ১৯৮৭ সালে অধ্যাপক পদে উন্নীত হন। ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থানে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার প্রয়াসে বিভিন্ন আন্দোলনমুখী নাটকে অংশগ্রহণ করেন। ১৯৭০ সালে সামরিক শাসনকে উপেক্ষা করে তৎকালীন অসহযোগ আন্দোলনে অংশ নেন নাট্যচর্চাকে হাতিয়ার করে। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ সৃজনীর ব্যানারে পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে ট্রাকে ট্রাকে ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে পথনাটক করেন। ইতোমধ্যে তার ১৮টি নাটক বিভিন্ন নাট্যপত্রে, বিশেষ ম্যাগাজিনে এবং বই আকারে প্রকাশিত হয়েছে। ইনামুল হক-এর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে: নির্জন সৈকতে, গৃহবাসী, মুক্তিযুদ্ধ নাটকসমগ্র, স্ট্রিন্ডবার্গ এর দু’টো নাটক, মহাকালের ঘোর সওয়ার, বাংলা আমার বাংলা ইত্যাদি।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

সর্বশেষ