Friday, September 30, 2022

এবারও গুচ্ছেই থেকে যাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) দ্বিতীয় বারের মতো অংশগ্রহণ করবে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায়। এতে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) কার্যালয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মোঃ ইমদাদুল হক।

উপাচার্য অধ্যাপক ইমদাদুল হক বলেন, “দ্বিতীয়বারের মত গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় থাকছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। তবে সেকেন্ড টাইম শিক্ষার্থীরা জবিতে ভর্তি হতে পারবে কিনা এমন সিদ্ধান্ত এখনো গৃহিত হয় নি। ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয়বার শিক্ষার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে একমত পোষণ করেছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহোদয়। সেক্ষেত্রে সেকেন্ড টাইম শিক্ষার্থীরা গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

” তিনি আরও বলেন,” আগামীকাল গুচ্ছ ভুক্ত আরেকটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। তখন ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচী, ভর্তি পরীক্ষার সিলেবাস ও অন্যান্য বিষয় বিস্তারিত জানানো হবে।

” এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন ৩৬ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও উপাচার্যগণের মনোনীত প্রতিনিধিরা।গুচ্ছ ভর্তি নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহমদ চ্যানেল মুঠোফোনে বলেন,”যেহেতু গুচ্ছ ভর্তি প্রক্রিয়া একটি নতুন পরীক্ষা ব্যবস্থা,সঙ্গে সঙ্গে বাদ না দিয়ে এর ত্রুটি বিচ্যুতি কী কী আছে,তা কীভাবে কমানো যায়, সেটা নিয়ে কাজ করাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। যেখানে মহামান্য রাষ্ট্রপতি বারবার এ বিষয়ে বলেছেন এবং প্রধানমন্ত্রী নিজেও গুচ্ছের পক্ষে কথা বলেছেন।” তিনি আরপ বলেন যে, গুচ্ছে কিছু ঝামেলা থাকলেও উপকার যে হয়নি তা কিন্তু নয়। যেখানে এক শহর থেকে অন্য শহরে ছুটে গিয়ে পরীক্ষা দিতে হচ্ছে না এক যায়গায় পরীক্ষা দিয়েই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী নিজেও গুচ্ছের পক্ষে থাকার অনুরোধ করেছেন তাই গুচ্ছের ত্রুটিবিচ্যুতি দূর কীভাবে করা যায় সেদিকে নজর দিতে হবে। গুচ্ছতে যেয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানহানী হয়েছে তা বলবো না।

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রায় ১০ বার মেরিট লিস্ট দিয়ে শিক্ষার্থী সংকট,তারপরও কেন গুচ্ছতে জবি? এ নিয়ে তিনি বলেন,” এবার যাতে সেরকম পরিস্থিতিতে পড়তে না হয় তা নিয়ে কাজ করবে প্রশাসন।” দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ নিয়ে তিনি বলেন যে, উপাচার্য মহোদয় এ বিষয় নিয়ে সভা করবেন,তারপর বিস্তারিত বলা যাবে। তবে আমি মনে করি অন্যান্য বিশ্বাবিদ্যালয় যদি দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ দেয় তাহলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে সে সুযোগ দেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

সর্বশেষ