Wednesday, May 25, 2022

সহায়তা না পেয়ে ন্যাটো নিয়ে যা বললেন জেলেনস্কি

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ১৩দিন পার হয়ে গেল। এই প্রায় ২ সপ্তাহে প্রাণ বাঁচাতে ইউক্রেন থেকে পালিয়ে পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র পোল্যান্ড ও রোমানিয়ায় প্রায় ২০ লাখ ইউক্রেনীয় আশ্রয় নিয়েছেন। জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গত ১৩ দিনের সামরিক অভিযানে ইউক্রেনে সাড়ে সাড়ে ৪ শ’র বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন।

তবুও পশ্চিমারা আশ্বাস দিয়েও যুদ্ধ সহায়তা পাঠাচ্ছে না।

বিষয়টি এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদোমির জেলেনস্কি। যে কারণে  পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটো নিয়ে তার উপলব্ধিতে পরিবর্তন এসেছে।

জেলেনস্কির মতে, ন্যাটো রাশিয়ার সঙ্গে সংঘাতে যেতে আগ্রহী নয়।

এ প্রসঙ্গে মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জেলেনস্কি বলেন, ‘আমরা ঠাণ্ডা মাথায় চিন্তা করে বুঝতে পেরেছি, ন্যাটো আসলে ইউক্রেনকে গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত নয়। এই জোট বিতর্কিত কোনো বিষয়ে জড়াতে চায় না এবং রাশিয়ার সঙ্গে সংঘাতে যেতে ভয় পায়।’

মূলত: ইউক্রেনের উপর রাশিয়ার ক্ষোভ বাড়ে এই ন্যাটোকে ঘিরেই। কয়েক বছর আগে ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য করা ইউক্রেনের আবেদন একেবারেই ভালোচোখে নেননি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তারপর থেকেই এই ব্যাপারটিকে ঘিরে ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার দ্বন্দ্বের মাত্রা চরমে ওঠে।

এরই মধ্যে ইউক্রেনকে ‘সহযোগী দেশ’ হিসেবে মনোনীত করে পুতিনের ক্ষোভের অনতে ঘি ঢালে ন্যাটো।

ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন প্রত্যাহারে ইউক্রেনের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে থাকে রাশিয়া। হুমকিস্বরূপ গত দুই মাস রাশিয়া-ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রেখেছিল মস্কো।

কিন্তু তাতে কাজ না হওয়ায় গত ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া।

সামরিক অভিযানের ১৩ দিন পেরিয়া যাওয়ার পরও ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো থেকে যুদ্ধবিষয়ক সহায়তা পায়নি ইউক্রেন।

এতে ন্যাটো নিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্টের উপলব্ধিতে অনেক পরিবর্তন এসেছে। রাশিয়ার সঙ্গে আপসে যেতেও রাজি তিনি।

তবে এ আপসকে আত্মসমর্পন হিসেবে দেখাতে রাজি নন তিনি। তাছাড়া ন্যাটোর সহযোগিতার আশায়ও বসে থাকতে চান না জেলেনস্কি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট সাক্ষাৎকারে বলেন,  ‘আমরা আত্মসমর্পণ করব না। আমি আলোচনার জন্য প্রস্তুত আছি, আত্মসমর্পণের জন্য নয়। আর আমরা যে নতজানু হয়ে ন্যাটোর সহযোগিতা চাইব, ব্যাপারটি এমন নয়। ইউক্রেন সে রকম কোনো দেশ নয় এবং আমিও তেমন প্রেসিডেন্ট নই।’

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

সর্বশেষ