Wednesday, May 25, 2022

সাধারণ সম্পাদকের আসনে বসতে পারছেন না কেউই

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির (বিএফডিসি) সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসতে পারছেননা জায়েদ-নিপুণ। জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে সাধারণ সম্পাদক পদে চেম্বারজজ আদালতের জারি করা স্থিতাবস্থাও বহাল রাখা হয়েছে। পাশাপাশি এ বিষয়ে জারি করা রুলের নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।

সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে ৬ বিচারপতির পূর্ণাঙ্গ আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে জায়েদের প্রার্থীতা বাতিল করে নিপুণকে সাধারন সম্পাদক ঘোষণা করেন আপিল বোর্ড। নিজের পদ ফিরে পেতে এ নিয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন জায়েদ খান। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। ফলে জায়েদ সাধারণ সম্পাদক পদ ফিরে পান। উচ্চ আদালতের এ আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আবেদন করেন নায়িকা নিপুণ আক্তার।

গতকাল রোববার শুনানি হওয়ার কথা থাকলেও এক দিন পিছিয়ে আজ নির্ধারণ করেছেন আদালত। সেখানেই এ আদেশ দেয়া হয়।

এর আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি ওই আপিলের শুনানি নিয়ে জায়েদের সাধারণ সম্পাদক পদ বাতিল করে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ দেন চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। দেশের সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হওয়ায় শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদটি এতদিন শূণ্য ছিল। চেম্বার আদালত ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক পদের ওপর স্থিতাবস্থা জারি করেন।

গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। পরে জায়েদের বিরুদ্ধে ‘টাকা দিয়ে ভোট কেনা’সহ নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ আনেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ। ভোটের সাতদিন পর গত ৫ ফেব্রুয়ারি আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান সোহানুর রহমান সোহান নিপুণকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী ঘোষণা করেন। এরপর থেকেই বিষয়টি ‘বেআইনি’ বলে দাবি করে আসছেন জায়েদ খান।

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Leave a Reply

সর্বশেষ